Dark Mode
Tuesday, 23 July 2024
Logo

সহজ কিছু নিয়মে ডেঙ্গু থেকে সাবধান হোন

সহজ কিছু নিয়মে ডেঙ্গু থেকে সাবধান হোন

করোনা মহামারির পরে ডেঙ্গু যেনো মহামারি আকারে দেখা দিয়েছে দেশে। প্রতিদিন গড়ে ১০ জনে মতো মানুষ মারা যাচ্ছে দেশে। যাদের বেশিরভাগই আবার রাজধানী ঢাকাতে। নতুন তকরে আক্রান্ত হয়ে হাজারের বেশি ভর্তি হচ্ছে হাসপাতালে।

জমে থাকা পরিষ্কার পানিতে জন্মে ডেঙ্গুর বাহক এডিস মশা। তাই বর্ষাকালে স্বাভাবিকভাবেই এর প্রকোপ বাড়ে। অসাবধানতাবশত অনেক সময়ে ঘরে বা ঘরের চারপাশ থেকেই জন্মে এডিস মশা।

৪–৫ দিনের জমে থাকা পরিষ্কার পানিতেই এডিস মশা জন্ম নিতে পারে। বিশেষ করে গাছের টবে জমা পানি, পাত্রে বা বালতিতে রাখা অব্যবহৃত পানি, এসি বা ফ্রিজে জমা পানি ঘরের মধ্যে মশা সৃষ্টি করতে পারে। এ ছাড়া বাড়ির চারদিকে ডাবের খোসা, পলিথিনের ব্যাগ বা অপ্রয়োজনীয় পাত্রে জমে থাকা পানিও এই মশা সৃষ্টির উৎস। তাই ঘর ও চারপাশ পরিষ্কার করেই কেবল ডেঙ্গু প্রতিরোধ সম্ভব।

এখন ঘরের বাইরের পাশাপাশি ঘরের ভেতরেও অনেকেই গাছ লাগান। বারান্দা বা ঘরের বিভিন্ন জায়গায় রাখা গাছের টব থেকেই হতে পারে মশার জন্ম। বর্ষাকালে বাইরে প্রায়ই বৃষ্টি হচ্ছে। অনেক সময় বারান্দায় রাখা গাছের পাত্রে জমে এই পানি। কয়েক দিন জমে থাকলেই এই পানি থেকে এডিস মশার জন্ম হয়। 

নিম্নের কিছু সাধারণ নিয়মে এডিস মশার আবাস ধ্বংস করে ডেঙ্গু থেকে মুক্ত থাকতে পারি আমরা সকলে। আসুন জেনে নেই, কীভাবে সাবধান হবো-

- বৃষ্টি হলেই গাছের টবের দিকে খেয়াল দিতে হবে, যেন বাড়তি পানি গাছের গোড়ায় বা টবের চারপাশে জমে না থাকে। প্রয়োজনে বাড়তি পানি ফেলে শুকনা কাপড় দিয়ে টব মুছে ফেলতে হবে।

- গাছে বেশি বেশি পানি দেওয়া যাবে না। এতে অপ্রয়োজনীয় পানিটুকু গাছের গোড়ায় জমে থাকে। আর প্রয়োজন অনুসারে পানি দিলে গাছ পানি টেনে নেয়।

- বর্ষাকালে বারান্দা বা ঘরে বেশি গাছ না রাখাই ভালো। প্রয়োজনে গাছের পাশের আগাছা ও ডালপালা ছেঁটে ছোট করে দিতে হবে।

- বারান্দার গাছগুলো এলোমেলো না রেখে সাজিয়ে রাখতে হবে। আর গাছের টবের মাঝে দূরত্ব রাখা জরুরি, যেন কোনো দিকে পানি জমতে না পারে।

- প্রতিদিন গাছের টবগুলো সরিয়ে শুকনা কাপড় দিয়ে জায়গাটি মুছে ফেলতে হবে। বাইরে বৃষ্টি না হলেও এই কাজটি প্রতিদিন করা জরুরি। 


- টবের নিচে বাটি বা থালাজাতীয় কিছু রাখা যাবে না। এতে পানি সহজেই জমে থাকে।

- জানালা বা গ্রিলে বেশি গাছ রাখা যাবে না। এতে ঘর অন্ধকার হবে। অপরিষ্কার ও অন্ধকার স্থানেই এডিস মশা বেশি জন্মে।

- গাছে পানি দেওয়ার পাত্রে যেন পানি থেকে না যায়, তা খেয়াল রাখা জরুরি।

- গোসলঘর বা রান্নাঘরে বালতি বা পাত্রের পানি জমিয়ে রাখা যাবে না। পাত্র বা বালতি ব্যবহারের পর উল্টিয়ে রেখে দিন যেন অসাবধানতায় পানি জমে না থাকে।

- ঘরেই বাইরে ময়লা বা অপ্রয়োজনীয় প্যাকেট, পলিথিন না ফেলে ময়লা পাত্রে ফেলুন। কারণ, এতে পানি জমেই মশা জন্মে।

- তুলসী, লেমনগ্রাস বা পুদিনাপাতার মতো গাছ বারান্দায় লাগাতে পারেন। এই গাছের গন্ধে মশা–মাছি অনেকটাই দূরে থাকে।

- ঘরে থাকা এসি ও ফ্রিজে যেন পানি না জমে, তাই কয়েক দিন পরপরই পরিষ্কার করে জমে থাকা পানি ফেলে দিতে হবে।

তথ্যসূত্র: জাতীয় তথ্য বাতায়ন ও ডব্লিউএইচও

Comment / Reply From

Stay Connected

Vote / Poll

ঈদযাত্রায় এবছর যানজট অনেকটা কম হবার কারণ কী বলে মনে করেন?

View Results
আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর যথাযথ পদক্ষেপ
0%
যথাসময়ে সড়কের উন্নয়ন কাজ শেষ
100%
যানজট এখনও রয়েই গেছে
0%
21313