Dark Mode
Wednesday, 30 November 2022
Logo

পাঁচ প্রকল্পে ১৩০৪ কোটি টাকার অনুমোদন

পাঁচ প্রকল্পে ১৩০৪ কোটি টাকার অনুমোদন

১৩০৪ কোটি ১৩ লাখ ৩৭ হাজার ৬৫৩ টাকার পাঁচটি প্রকল্পের অনুমোদন দিয়েছে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি। বুধবার সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির ৩৫তম সভায় এ সিদ্ধান্ত হয় বলে জানায় অর্থ মন্ত্রণালয়।

 

 

এ ছাড়া অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির ২৭তম সভায় প্রস্তাব ছিল দুটি। এরমধ্যে একটির অনুমোদন হয়নি,  দ্বিতীয়টি মুলতুবি হয়।ক্রয় কমিটির পাঁচটি প্রস্তাবনাগুলোর মধ্যে সবগুলো অনুমোদন পায়। প্রস্তাবগুলোতে মোট অর্থের পরিমাণ ১ হাজার ৩০৪ কোটি ১৩ লাখ ৩৭ হাজার ৬৫৩ টাকা।  মোট অর্থায়নের মধ্যে জিওবি থেকে ব্যয় হবে ৩২৭ কোটি ১ লাখ ২৪ হাজার ৩৬৫ টাকা এবং দেশীয় ব্যাংক ঋণ ৯৭৭ কোটি ১২ লাখ ১৩ হাজার ২৮৮ টাকা।

 

প্রথমটি হলো কৃষি মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন করপোরেশন (বিএডিসি) কর্তৃক রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে চুক্তির আওতায় কানাডিয়ান কমার্শিয়াল করপোরেশন হতে অষ্টম লটে ৫০ হাজার মেট্রিক টন মিউরেট-অব-পটাশ (এমওপি) সার ৪১৪ কোটি ১৩ লাখ ১৪ হাজার ৩০০ টাকায় আমদানির প্রস্তাব।

 

অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের অধীন জাতীয় রাজস্ব বোর্ড কর্তৃক বিভিন্ন কাস্টম হাউস ও দপ্তরের জন্য ছয়টি পূর্ণাঙ্গ কন্টেইনার স্ক্যানার সিস্টেম ৩২৭ কোটি ১ লাখ ২৪ হাজার ৩৬৫ টাকায় ক্রয়।

 

শিল্প মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ কেমিকেল ইন্ডাস্ট্রিজ করপোরেশন (বিসিআইসি) কর্তৃক রাষ্ট্রীয় চুক্তির মাধ্যমে সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে ষষ্ঠ লটে ৩০ হাজার মেট্রিক টন বাল্ক গ্র্যানুলার ইউরিয়া সার ১৮৮ কোটি ৯৩ লাখ ২০ হাজার ৬৪৪ টাকায় আমদানির প্রস্তাব।

 

বিসিআইসি কর্তৃক কর্ণফুলী ফার্টিলাইজার কোম্পানি লিমিটেড (কাফকো) থেকে নবম লটে ৩০ হাজার মেট্রিক টন ব্যাগড গ্র্যানুলার ইউরিয়া সার ১৮৫ কোটি ১২ লাখ ৫৭ হাজার ৭০০ টাকায় ক্রয়ের প্রস্তাব।

 

সর্বশেষ প্রস্তাবনাটি ছিল বিসিআইসি কর্তৃক রাষ্ট্রীয় চুক্তির মাধ্যমে কাতার থেকে ১১তম লটে ৩০ হাজার মেট্রিক টন বাল্ক গ্র্যানুলার ইউরিয়া সার ১৮৮ কোটি ৯৩ লাখ ২০ হাজার ৬৪৪ টাকায় আমদানি।

 

বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভায় উপস্থাপিত হয় বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয় কর্তৃক বাংলাদেশ জুট করপোরেশনের (বিলুপ্ত) নওগাঁ জেলা সদরে দশমিক ৯২৩৭ একর সম্পত্তি সম্পত্তি ৩১ লাখ ২০ হাজার ১ টাকায় মেসার্স মীর অ্যান্ড কোম্পানির মালিক মীর আল মামুনের কাছে বিক্রয় ও রেজিস্ট্রেশন পুনর্বিবেচনার প্রস্তাব।  এটির অনুমোদন হয়নি।

 

দ্বিতীয় প্রস্তাবনাটি ছিল বেসরকারি বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ কর্তৃক ‘সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর উন্নয়ন’ প্রকল্পের অতিরিক্ত কাজের ড্রইং এবং ডিজাইনের জন্য একক উৎসভিত্তিক দুই কোরিয়ান পরামর্শক প্রতিষ্ঠান নিয়োগের। এটি মুলতবি হয়েছে।
     

বিটি/ এমকে  

Comment / Reply From

Stay Connected

Vote / Poll

ঈদযাত্রায় এবছর যানজট অনেকটা কম হবার কারণ কী বলে মনে করেন?

View Results
আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর যথাযথ পদক্ষেপ
0%
যথাসময়ে সড়কের উন্নয়ন কাজ শেষ
100%
যানজট এখনও রয়েই গেছে
0%
21313